জাফরান তেল এর উপকারিতা এবং জাফরান তেলের অপকারিতা

জাফরান হেয়ার ওয়েল নিয়ে আমরা এর আগেও আলোচনা করেছি। আজকে আবারো এই জাফরান তেল নিয়েই আলোচনা করবো। কেননা পূর্বের আলোচনায় এই তেলটি নিয়ে সম্পূর্ণ তথ্য দিতে পারিনি। আশা করি আপনারা সকলে ভালো আছেন। যারা জাফরান তেল নিয়ে জানতে চাচ্ছেন তাদের জন্য আজকের এই পোস্ট।

যেখানে জাফরান তেল এর উপকারিতা এবং জাফরান তেলের অপকারিতা আলোচনা করা হবে। এরই সাথে জাফরান হেয়ার গ্রোথ থেরাপি ব্যবহারের নিয়ম জানানো হবে। তাছাড়া আসলেই জাফরান তেল কি চুল লম্বা করে কি না তা জানিয়ে দিবো। এসকল তথ্য জানতে নিম্নের আলোচনা মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

ইতোমধ্যে আমরা আলোচনা করেছি জাফরান তেল ব্যবহারের নিয়ম ও আসল জাফরান তেল চেনার উপায় সম্পর্কে। সেই পোস্টে আমরা জানতে পেরেছি এই জাফরান হেয়ার ওয়েল / জাফরান হেয়ার গ্রোথ থেরাপি হচ্ছে পাকিস্তানের কাশ্মীরে তৈরী একটি তেল। যেটির মূল উপাদান হচ্ছে জাফরান। জাফরান অতি দামি একটি উপাদান যার উপকারিতার লিস্ট অনেক বড়।

জাফরান তেল এর উপকারিতা

প্রত্যেকটি প্রসাধনী নিজের প্রোডাক্ট নিয়ে অনেকগুলি দাবি-দাবা করে থাকে। যার মধ্য থেকে কয়েকটি আসলেই সত্য হয়ে থাকে আবার অনেকগুলো মিথ্যা থাকে। এমনও দেখা যায় সে প্রসাধনীর কোনো উপকারিতাই নেই, তার সকল দাবি মিথ্যা। তবে যদি কথা বলি জাফরান তেল নিয়ে তাহলে এই তেলটিরও বেশ কয়েকটি দাবি রয়েছে। সেসকল দাবি-দাবা জাফরান তেল এর প্যাকেটের গায়ে লেখা আছে।

আপনারা চাইলে পড়ে নিতে পারেন। তবে আমি নিচে পয়েন্ট আঁকারে এই তেলের দাবিকৃত সকল উপকার আলোচনা করবো। আশা করছি সেখান থেকে এর উপকার সম্পর্কে জানতে পারবেন। কিন্তু আমি এর কোনো গ্যারান্টি নিবো না যে, আসলেই দাবিকৃত উপকারসমহু সত্য কি না। আমি শুধু জাফরান তেল এর কর্তৃপক্ষের দ্বারা দাবিকৃত উপকারসমূহ জানিয়ে দিচ্ছি।

  • ৩ দিনে চুল পড়া কমায়।
  • ১ মাসের মধ্যে চুল ৩ ইঞ্চি পর্যন্ত লম্বা করে।
  • ২ মাসের মধ্যে মাথায় নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে।
  • মাথার যেসকল স্থানে চুল নেই / চুল হচ্ছে না সেসকল স্থানে চুল গজাতে সহায়তা করে।

Read More : লরিক্স প্লাস লোশন ব্যবহারের নিয়ম | লরিক্স প্লাস লোশন এর দাম

জাফরান তেলের অপকারিতা

জাফরান হেয়ার গ্রোথ থেরাপি বা সহজে জাফরান তেল যে দাবিগুলো করে সেগুলো সবার জন্য কার্যকরী হয় না। অনেকে আছেন যারা এই তেল থেকে উপকৃত হয়েছে। তবে তারা যেভাবে বড় বড় দাবি করে সেভাবে কেউই উপকৃত হননি। তেমনিভাবে অনেক ব্যবহারকারীরা আছেন যারা তেলটি ব্যবহার করার পর কোনো রকম উপকারিতা পান নি।

এমনকি উল্টো অপকৃত বা ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছেন। তারা কি কি সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন, তাদের কি কি ক্ষতি বা সাইড এফেক্ট হয়েছে এই সকল বিষয়ে জানাবো। তবে এটি জেনে রাখুন যে তেলটির দাবি সম্পূর্ণ ঠিক নয়। যারা এর মাধ্যমে কিছুটা উপকৃত হয়েছেন তারা জানান তেলটি অনেকদিন ধরে ব্যবহার করার কারণে তারা কিছুটা উপকার লাভ করেছেন

এবং তাদের চুল পড়া কিছুটা কমে এসেছে। তবে তারা যে বলে ৩ দিনে চুল পড়া কমাবে, ১ মাসে চুল লম্বা করবে এসকল দাবি মিথ্যা। কিছু কিছু ব্যক্তিরা অবশ্যই উপকার পেতে পারেন। তবে সেটি কেবল তখনই সম্ভব যখন আপনি এই তেলটি বেশিদিন ব্যবহার করবেন। জাফরান তেলের অপকারিতাসমূহ / সাইড এফেক্ট হচ্ছে –

  • তেলটি অনেক ঠান্ডা। তাই যারা রাতে তেলটি লাগিয়ে ঘুমান তাদের মাথা ব্যাথা, ঠান্ডা লাগা, নাক-মুখ ফুলে যাওয়ার মতো সমস্যা দেখা দেয়।
  • তেলটি লাগানোর পর অনেকের চুল পড়া কমেনি। আবার কারো কারো চুল পড়া বেড়ে গিয়েছে।
  • তেলের মধ্যে অনেক শক্তিশালী একটি ঘ্রান রয়েছে। অনেকে এই ঘ্রাণটিকে পছন্দ করেন না।
  • ৩ দিনে চুল পড়া বন্ধ করে না। দীর্ঘদিন ব্যবহারের ফলে চুল পড়া কিছুটা কমতে পারে।
  • যাদের এলার্জি আছে তাদের জন্য তেলটি উপকারী নয়।
  • যাদের বংশগত কারণে চুল পাতলা, চুল গজায় না, টাক পরে যায়, চুল পরে তাদের ক্ষেত্রে তেলটির কোনো কার্যকারিতা নেই।

যারা এই তেলটি ব্যবহার করেছেন তাদের সকলের রিভিউ দেখে আমি এর তথ্যগুলো উপস্থাপন করেছি। এছাড়াও আমার নিজের কিছু রিসার্চ রয়েছে। আপনি নিজেই চিন্তা করুন একটি তেল কিভাবে ৩ দিনের মধ্যে চুল পড়া বন্ধ করতে পারে? সাথে ১ মাসের মধ্যে ৩ ইঞ্চি চুল লম্বা করার দাবি এগুলো কিভাবে সম্ভব। কেননা চুলের স্বাভাবিক বৃদ্ধি তো এর চেয়ে অনেক কম।

জাফরান তেলের অপকারিতা

Read More : Top 5 Night Cream in Bangladesh (low to high Budget Cream)

জাফরান হেয়ার গ্রোথ থেরাপি ব্যবহারের নিয়ম

হতে পারে অনেকে জাফরান হেয়ার গ্রোথ থেরাপি তেলটি সঠিকভাবে ব্যবহার করতে না পারায় এর থেকে কোনো উপকারিতা পাচ্ছেন না। তাই যারা তেলটি ইতোমধ্যে ক্রয় করেছেন তারা নিম্নে আলোচনা করা জাফরান হেয়ার গ্রোথ থেরাপি ব্যবহারের নিয়মগুলো দেখে সে অনুযায়ী এটি ব্যবহার করুন।

  1. তেলটি লাগানোর আগে অবশ্যই মাথার চুল ও চুলের গোড়া পরিষ্কার এবং শুকনো থাকতে হবে।
  2. তারপর তেলটি পর্যাপ্ত পরিমান বের করে বাটিতে নিতে পারেন কিংবা সরাসরি চুলের গোড়ায় ভালোভাবে মালিশ করে নিতে পারেন।
  3. তবে অবশ্যই সম্পূর্ণ মাথায় চুলের গোড়াতে তেলটি পৌঁছাতে হবে।
  4. সর্বনিম্ন ১ ঘন্টা মাথায় রেখে যেকোনো হারবাল শ্যাম্পু দ্বারা মাথা ধুয়ে নিতে হবে।
  5. আপনি চাইলে রাতে তেলটি লাগিয়ে পরেরদিন গোসলের সময় মাথা ধৌত করতে পারেন।
  6. আপনি সপ্তাহে যতবার মাথায় শ্যাম্পু প্রয়োগ করেন ঠিক ততবার এই তেল ব্যবহার করুন। কারণ তেলটি লাগানোর পর হারবাল শ্যাম্পু দিয়ে মাথা ধৌত করা জরুরি।
  7. যাদের ঠান্ডা লাগার সমস্যা আছে তারা গোসল করার ২ ঘন্টা আগে তেলটি লাগিয়ে নিবেন। গোসলের সময় শ্যাম্পু করে নিবেন।

জাফরান তেল কি চুল লম্বা করে?

যাদের চুল আগে থেকেই লম্বা ও বংশগতভাবে টাক পড়া বা চুল পড়ার কোনো সমস্যা নেই তাদের ক্ষেত্রে দীর্ঘদিন জাফরান তেল ব্যবহার করার পরে চুল কিছুটা লম্বা ও ঘন হয়। তবে তেলের প্যাকেটে ১ মাসে ৩ ইঞ্চি পরিমান চুল লম্বা হওয়ার যে দাবিটি আছে সেটি সম্পূর্ণ ভুল।

আর যাদের চুল পরে যাওয়ার সমস্যা বংশগতভাবে রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে জাফরান তেল ব্যবহারে চুল লম্বা হওয়ার বা চুল পড়া বন্ধ হওয়ার কোনো কার্যকারিতা নেই। এছাড়াও যাদের এলার্জির সমস্যা আছে তাদের ক্ষেত্রেও তেলটি লাগিয়ে কোনো লাভ নেই।

উল্টো চুল পড়া বেড়ে যেতে পারে। আপনারা চাইলে একজন ভালো চর্ম বিশেষজ্ঞের শরণাপন্ন হতে পারেন। অথবা আপনার শহরের কোনো ভালো ডার্মাটোলজিস্ট এর কাছে চিকিৎসা নিলে আপনার চুলের সমস্যার সমাধান করা সম্ভব হবে।

Read More : পা ফাটে কোন ভিটামিনের অভাবে? পা ফাটা দূর করার ঘরোয়া উপায়

FAQ

জাফরান তেল কি চুলের জন্য ভালো?

জি অবশ্যই, জাফরান তেল চুলের জন্য ভালো। জাফরান একটি প্রাকৃতিক উপাদান যেটি শরীরের সামগ্রিক ক্ষেত্রে উন্নতি প্রদান করে। জাফরান দিয়ে তৈরী তেলও চুলের জন্য অত্যান্ত ভালো। তবে শর্ত হচ্ছে সেটি আসল জাফরান দিয়েই তৈরী হতে হবে। যদি তেলটি কেমিক্যাল বা অন্যান্য উপাদান দিয়ে তৈরী করে তাতে জাফরানের নাম লাগিয়ে দেওয়া হয় তবে শত চেষ্টার পরেও সেটি আপনার কোনো উপকার করতে পারবে না। জাফরান অনেক দামি একটি উপাদান কাজেই এত দামি জিনিসের তেল পাওয়া অনেক কঠিন। পেয়ে গেলেও আসলেই জাফরান দিয়ে তৈরী কি না এটি জানা মুশকিল। সত্যিকারে জাফরানের তৈরী তেল প্রচুর দামি হবে।

চুলে জাফরান তেল কিভাবে ব্যবহার করবেন?

চুলে জাফরান তেল অন্যান্য তেলের মতোই ব্যবহার করবেন। তবে কিছু কিছু জিনিস মনে রাখতে হবে। যেমন : তেলটি লাগানোর আগে অবশ্যই চুল ও মাথা পরিষ্কার থাকতে হবে, জাফরান তেল লাগানোর পর নির্দিষ্ট সময়ের জন্য মাথায় রাখতে হবে এবং সবশেষে শুধুমাত্র হারবাল শ্যাম্পু দিয়ে মাথা ধৌত করতে হবে। এই সামান্য কিছু নিয়ম মেনে জাফরান তেল ব্যবহার করা যেতে পারে।

জাফরান হেয়ার গ্রোথ থেরাপি ব্যবহারে কত দিনে চুল লম্বা হয়?

জাফরান হেয়ার গ্রোথ থেরাপি ব্যবহারে কত দিনে চুল লম্বা হয় এর কোনো তথ্য নেই। জাফরান হেয়ার গ্রোথ থেরাপি’র প্যাকেটে লেখা আছে এটি ১ মাসে ৩ ইঞ্চি চুল লম্বা করে। এটি আসলে ভুল দাবি। যারা তেলটি ব্যবহার করেছেন ১ মাসের মধ্যে কারো চুল এতো বড় হয়নি। তবে যাদের চুল আগে থেকেই লম্বা ও ভালো অবস্থায় ছিল তারা দীর্ঘদিন জাফরান হেয়ার গ্রোথ থেরাপি ব্যবহারের পর তাদের চুল কিছুটা লম্বা হয়েছে। তাই কতদিনে চুল লম্বা হয় এটি বলা যাচ্ছে না। শুধু এতটুকু বলা যায় যে তেলটি দীর্ঘদিন ব্যবহার করতে হবে।

উপসংহার

আজকের পোস্টে জাফরান তেল এর উপকারিতা এবং জাফরান তেলের অপকারিতা সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে। তাছাড়া জাফরান হেয়ার গ্রোথ থেরাপি ব্যবহারের নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জানানো হয়েছে। সাথে জাফরান তেল কি চুল লম্বা করে এরকম কিছু প্রশ্নের জবাব দেয়া হয়েছে। যেটি এই তেলের ব্যবহারকারীরা করে থাকেন।

আশা করছি পোস্টটি আপনার কাছে উপকারী মনে হয়েছে। তাই পোস্টটি শেয়ার করে সকলের কাছে পৌঁছে দিন। কোনো কিছু বলার ও জানার থাকলে কমেন্ট করুন। শতভাগ উত্তর দেওয়া হবে। ধন্যবাদ।

By AzimAdmin

Hi, I am a professional Blogger & SEO Expert. I am working on this field since 2019. I've a huge experience in my profession. I also worked on so many projects and websites.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *